বাবার হাতে ছেলে খুন - রায়ান পূর্ব বর্ধমান

পারিবারিক অশান্তির জেরে বাবার হাতে ছেলে খুন:

Father kills son narandighi burdwan rayan


০২/০৭/২০২০ প্রতিনিধিঃ আমজাদ আলী শেখ

পূর্ব বর্ধমান:পারিবারিক অশান্তির জেরে বাবার হাতে নৃশংস্যভাবে খুন হল ৩৪ বছরের ছেলে। মৃ ব্যক্তির নাম তারক রায় (৩৪)। বাড়ি বর্ধমান থানার অন্তর্গত রায়ান গ্রামের নারানদিঘী মোরলপুকুর এলাকায়। এই ঘটনার পর থেকে পলাতক মৃ ব্যক্তির বাবা অভিযুক্ত রবি রায়।   

প্রতিবেশী এবং মৃতের আত্মীয় সূত্রে জানা গেছে, আগে রবি রায় বর্ধমান শহরের  রেল স্টেশন সংলগ্ন অঞ্চল লক্ষ্মীপুর মাঠ এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। সম্প্রতি তাঁরা নারানদিঘী এলাকায় নিজের বাড়ি করে বসবাস শুরু করেছেন - সেখানেই আলাদা বাড়িতে থাকেন রবি রায়ের স্ত্রী, বড়ছেলে। পাশের অন্যবাড়িতে রবিবাবু থাকতেন অবিবাহিত ছোট ছেলে তারক রায়ের সঙ্গে। 

মৃত তারক রায়ের বড় দাদা ধনঞ্জয় রায় জানিয়েছেন, প্রায় দিনই তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে বাবার ঝামেলা হত। প্রায়শই পাড়া প্রতিবেশীরা গিয়ে মিটিয়ে দিতেন। মঙ্গলবার রাতেও দুজনের মধ্যে ঝামেলা হয় এবং প্রতিবেশীরা গিয়ে মিটিয়ে দেন। এরপর বুধবার দুপুর প্রায় সাড়ে বারোটা নাগাদ তখনও বাবা বা ভাইয়ের কোনো সাড়া না পেয়ে তাঁরা গিয়ে দেখেন ভাইয়ের ক্ষতবিক্ষত রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে রয়েছে বিছানায়। মৃতদেহের পাশেই পড়েছিল একটি লোহার রড। প্রাথমিকভাবে অনুমান লোহার রড দিয়েই পিটিয়ে খুন করা হয়েছে তারক রায়কে। 

এদিকে, এই ঘটনার পরই পালিয়ে যান রবি রায়। ধনঞ্জয়বাবু জানিয়েছেন, তাঁর বাবা রেলে হকারি করতেন। লকডাউনের জেরে গত কয়েকমাস হকারি করা বন্ধ থাকায় যখন যা পেতেন তাই কাজ করতেন। অন্যদিকে, তারক রায় বেসরকারী সংস্থায় নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করতেন। মর্মান্তিক এবং নৃশংস এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ।



বিস্তারিত জানার জন্য খবর দেখুন -

সঙ্গে থাকুন - এক কদম এগিয়ে থাকুন
Reactions

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য